38 C
Dhaka
Thursday, April 25, 2024

সখীপুরে বর্তমান এমপির অনুসারীদের হামলায় সাংবাদিকসহ আহত ৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের সখীপুরে সাবেক এমপি ও...

সখীপুরে এক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়, জেলা শিক্ষা অফিসের তদন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার লাঙ্গুলিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের...

সখীপুরে শালবন ছাত্র কল্যাণ সংসদের কমিটি গঠন 

নিজেস্ব প্রতিবেদক: সখীপুরের কাকড়াজান ইউনিয়নে বড়বাইদ পাড়ায়...

মুক্তিযোদ্ধা ভাতা ১ লাখ করার দাবি কাদের সিদ্দিকীর

জাতীয়মুক্তিযোদ্ধা ভাতা ১ লাখ করার দাবি কাদের সিদ্দিকীর

নিজস্ব প্রতিবেদক: মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১ লাখ টাকা করার দাবি জানিয়েছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী। সোমবার রাতে টাঙ্গাইলের সখীপুরে কাদেরিয়া বাহিনীর সহকারী বেসামরিক প্রধান বীরপ্রতীক হামিদুল হক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম সিদ্দিকীর স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, ‘যেদিন অস্ত্র জমা দিয়েছিলাম, সেদিন বঙ্গবন্ধুর কাঁধে কিংবা হাতে জমা দিতে পারতাম। কিন্তু, সম্মান করে তার পায়ের নিচে বিছিয়ে দিয়েছিলাম। অস্ত্র কোনো শক্তি নয়, মেধাই শক্তি। তাকে পিতার মতো মনে করে যুদ্ধ করেছিলাম। সেই পিতাকে যখন খুনিরা হত্যা করে আর যাদের হাতে অস্ত্র ছিল তারা প্রতিবাদ করেনি; আমিই প্রতিবাদ করেছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘৫ বছর ধরে আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে দলে টানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এখনো বলার সময় হয়নি, ভেবে দেখার বিষয়। তবে চামড়া ছুলা মতিয়া চৌধুরী, হাসানুল হক ইনু আর ২৮৩ খুনের মামলার আসামি শাজাহান খানের সঙ্গে আমার রাজনীতি করা চলে না।’

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘বিএনপি ও জাতীয় পার্টিতে যেতে পারতাম। কিন্তু, যতদিন রাজনীতি করব বঙ্গবন্ধুকে মেনেই করব। সেজন্যই দল করেছি। অন্য কারও দলে যাওয়ার প্রয়োজন মনে করি না।’

তিনি বলেন, ‘সারাদেশেই মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ সম্মান করা হচ্ছে না। অনেকেই প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হয়েও স্বাধীনতার ৪৭ বছরেও তালিকায় নাম উঠাতে পারেননি। তাদের নিয়ে প্রশাসন ছিনিমিনি খেললে ছাড় দেয়া হবে না।’

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের এই নেতা বলেন, ‘সখীপুরে একমাত্র খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা বীরপ্রতীক হামিদুল হক। ’৭১ সালে হামিদুল হক ও আবদুস সালাম সিদ্দিকী মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রেখেছেন। আবদুস সালাম সিদ্দিকী প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হয়েও তালিকায় তার নাম না উঠায় সাংঘাতিক আঘাত পেয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমি যেমন প্রধানমন্ত্রীর কল্যাণ চাই, ঠিক তেমনি খালেদা জিয়ারও চাই, দেশ ও মুক্তিযোদ্ধাদেরও কল্যাণ চাই। মুক্তিযুদ্ধ ছেলেখেলা ছিল না। আমিই প্রথম মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার দাবি করেছিলাম। ২০০ থেকে এখন তারা মাসিক ১০ হাজার টাকা পাচ্ছেন। আমি বেঁচে থেকে দেখে যেতে চাই এবং সরকারের দাবি করছি মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১ লাখ টাকা করতে হবে।’

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম সরকারের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- কাদেরিয়া বাহিনীর বেসামরিক প্রধান আবু মোহাম্মদ এনায়েত করিম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা বীর প্রতীক, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত শিকদার, পৌরমেয়র আবু হানিফ আজাদ, ইউএনও মৌসুমী সরকার রাখী, শম আমজাদ হোসেন, এমএ গণি, আতাউর রহমান, আলমগীর সিদ্দিকী প্রমুখ।

সূত্র: পরিবর্তন ডটকম

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles