28 C
Dhaka
Friday, June 14, 2024

ভার্চুয়াল জগতে চাই শুদ্ধ সংস্কৃতির চর্চা

হারুন মাহমুদ: আমরা জানি, আবহমান বাঙালির হাজার...

প্রতিমা বংকী পাবলিক লাইব্রেরির উদ্যোগে দেশিবৃক্ষ রোপণ কর্মসূচী

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের সখীপুরে দেশি প্রজাতির বৃক্ষরোপণ...

সখীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: বিজয়ী হলেন যাঁরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ...

সখীপুরে লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ এলাকাবাসীর মানববন্ধন

সখীপুরগজারিয়াসখীপুরে লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের সখীপুরে তীব্র তাপদাহে বিদ্যুতের অতিমাত্রায় লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ হয়ে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-সখীপুর আঞ্চলিক মহসড়কের প্রতিমা বংকী শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম এলাকায় এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে বিভিন্ন এলাকার দুই শতাধিক বিদ্যুৎ গ্রাহক ও স্থানীয় লোকজন অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করেন, চলমান তীব্র দাবদাহে অতিমাত্রায় লোডশেডিংয়ে বিদ্যুৎ গ্রাহকদের জীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া চলতি ইরি-বোরো মৌসুমে বিদ্যুতের অভাবে ধান খেতে সেচ দেওয়া যাচ্ছেনা। পানির অভাবে ধান খেত মরে যাচ্ছে, অধিক তাপমাত্রায় ধানে ব্লাস্ট রোগের আক্রমণ হচ্ছে। এ বিষয়ে বারবার বিদ্যুৎ অফিসে জানিয়েও কোনো সুরাহা হচ্ছেনা। কেউ কেউ ডিজেল মেশিন দিয়ে পুকুর থেকে পানি নিয়েও ধান খেতে সেচ দিচ্ছেন। কিন্তু এভাবে ফসল রক্ষা সম্ভব হচ্ছে না। এ সময় বক্তারা বিদ্যুতের সরবরাহ বাড়িয়ে লোডশেডিং কমানোর জোর দাবি জানান।

সরেজমিনে বিদ্যুৎ গ্রাহকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত বেশ কয়েকদিন ধরে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি) অধীনে নলুয়া ফিডারের আওতাধীন প্রতিমা বংকী, ইছাদীঘি, শোলাপ্রতিমা, লাঙ্গুলিয়া, দেওবাড়ি এলাকার বিদ্যুৎ গ্রাহকেরা প্রতিদিন গড়ে দুই থেকে তিন ঘণ্টাও বিদ্যুৎ পাচ্ছেনা। এতে স্থানীয়রা ধানের সেচ ও খামার নিয়ে বেশ বিপাকে পড়েছেন।

মানববন্ধনে স্থানীয় বাজার বণিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তাফার সভাপতিত্বে দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) প্যানেল চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, যুবলীগের সভাপতি শাহআলম শিকদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিদ্দিকী, কৃষক সাইদুল ইসলাম সিদ্দিকী, আবুল কালাম, আবু তালেব, জাফর আহমেদ, আবদুল মজিদ প্রমুখ বক্তব্য দেন। এ সময় প্রতিমা বংকী, শোলাপ্রতিমা, বোয়ালী, লাঙ্গুলিয়া, দেওবাড়ি ও দাড়িয়াপুর গ্রামের প্রায় দুই শতাধিক কৃষক, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles